বাংলা আমার মায়ের ভাষা খোদার সেরা দান, ২১’ এর দেশে উনিশের জয়গান চলছে,চলবে।

আমাদের স্টেটের বরাক উপত্যাকায় বাংলাভাষী জনতা ১৯৬১ সালের ১৯ মে মায়ের ভাষার মর্যদা ও কথা বলার অধিকার রক্ষা করতে গিয়ে ১১(এগার)জন ভাই নিজের জীবন বিলিয়ে দিয়েছেন। বাংলাভাষার আন্দোলনে এ শহীদের ত্যাগ,রক্ত-কোন দিন বৃথা যেতে পারেনি। তারা একটি মর্যাদা পূর্ণ ইতিহাস সৃষ্টির পাশাপাশি বাংলাভাষার যে লড়াইয়ের সূচনা করেছেন তা কেয়ামত পর্যন্ত অমর হয়ে থাকবে। বাঙ্গালীর আতœদানের ইতিহাস ভারতের সম্মৃদ্ধ ইতিহাস। বরাক উপত্যাকায় বাংলাভাষার এ সংগ্রাম আন্তর্জাতিক ভাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করলেও এখনো এখানে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি আসেনি। তবে স্বীকৃতি তো ইতিহাসের পাতা থেকে কেউ ফেলে দিতে পারবে না। পৃথিবীব্যাপী ছন্নছাড়া বাংলাভাষী বাঙ্গালীদের নিজেদের শিকড় সন্ধান করতে একটি সাহস সঞ্চার করে জাগাতে হলে বরাক উপত্যাকার বাংলাভাষার আন্দোলন সব সময় মনের ভিতর সম্মৃদ্ধ রাখতে হবে। আমার বাংলাদেরশর ‘৫২ এর একুশ এ ৬২ সালের বরাক উপত্যাকার উনিশের আদর্শের সৈনিক। ভাষাসৈনিকদেও উত্তর সূরী। উনিশ াার একুশ একই রক্তধারায় প্রবাহিত হবে। এখানে উনিশ-একুশ পরস্পর সর্ম্পক নষ্ট হতে পারেনা।বাংলা ভাষাকে উর্দূ ভাষার খপ্পর থেকে রক্ষা করা ছিল ৫২ এর ভাষা আন্দোলনের সফলতা, বাংলাভাষা আমাদের মাতৃভাষা বারবার বাংলাবিরোধী লুটেরাদের কবলে পড়েছিল। মাতৃভাষা বাংলাকে লাঞ্চনার শিকার হতে হয়েছে। কিš‘ পরিসংখ্যান মতে বিশ্বে সবচেয়ে বেশী উ”চারিত ভাষার নাম আমাদের বাংলা ভাষা। ….. চলবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*