সোনাইছড়িতে আরও ১২ জনের চিকুনগুনিয়া

সীতাকুণ্ড সংবাদদাতা::
সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ির মদনহাট জেলেপল্লিতে আরও ১২ জনের চিকুনগুনিয়া হয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। এর আগে বুধবার পর্যন্ত ৯৫ জনের চিকুনগুনিয়া সন্দেহ করা হয়েছিল ওই পল্লিতে। তবে কাউকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়নি।
সুচিকিৎসার জন্য আট সদস্যের একটি মেডিকেল টিম, ১৫ সদস্যের দুটি স্বাস্থ্য শিক্ষা কমিটি গঠন এবং আক্রান্তদের মশারির মধ্যে রাখার জন্য ১০০ মশারি বিতরণ করেছেন জেলা সিভিল সার্জন। শুক্রবার (০৩ নভেম্বর) ঢাকা থেকে আসা একটি টিম ওই এলাকার এডিস মশার ওপর জরিপকাজ শুরু করবে।
বৃহস্পতিবার (০২ নভেম্বর) সরেজমিন পরিদর্শন শেষে বিষয়টি বাংলানিউজকে জানান সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী।সোনাইছড়িতে সরেজমিন পরিদর্শনে যান সিভিল সার্জন।
আতঙ্কের কিছু নেই জানিয়ে তিনি বলেন, জ্বরটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। তাদের শরীরে ব্যথা রয়েছে। কারও কারও জয়েন্ট (গিড়া) ফুলে গেছে। মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) পর্যন্ত আক্রান্ত ছিল ৭৫ জন। বুধবার আরও ২০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সন্দেহ করা হচ্ছে চিকুনগুনিয়া। এর আগে ঢাকায় প্রচুর মানুষ চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এ রোগে মৃত্যুর হার খুবই কম।
তিনি বলেন, ওই জেলেপল্লিতে মোট ২৭৫ পরিবার থাকে। জনসংখ্যা হবে প্রায় দেড় হাজার। এর মধ্যে উত্তর পাড়ায় থাকে ৯০ পরিবার। বাকিরা দক্ষিণ পাড়ায়। আমরা জনপ্রতিনিধিদের এলাকার ঝোপঝাড় পরিষ্কার করার জন্য বলেছি। মানুষকে এডিসসহ সব ধরনের মশার প্রজনন যাতে না ঘটে, মশার কামড় থেকে যাতে দিতে না পারে সে ব্যাপারে সচেতন করতে বলেছি। উত্তর পাড়ায় ৫ সদস্যের টিম, দক্ষিণ পাড়ায় ১০ সদস্যের টিম স্বাস্থ্য শিক্ষা দেবে জেলে পরিবারগুলোকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*