চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে মহাসমাবেশ সফল করার আহবান

বে-সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকরি জাতীয়করণের আন্দোলনকে বেগবান করে দাবি আদায়ের কর্মসূচিকে সফল করার জন্য আগামী ১৯ মার্চ ঢাকায় প্রেসক্লাবে মহাসমাবেশে যোগদানের জন্য দলমত নির্বিশেষে সকল স্তরের শিক্ষক কর্মচারীদের ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোট নেতৃবৃন্দ। সংগঠনের চট্টগ্রাম জেলা শাখার সভাপতি অধ্যাপক মোঃ নাজেমুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় নেতৃবৃন্দ এ আহবান জানান। আজ বিকেল ৫টায় শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষিত বে-সরকারি শিক্ষক-কর্মচারিদের চাকরি জাতীয়করণের চলমান আন্দোলনকে সফল করার লক্ষে চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ে আয়েজিত সভায় বক্তব্য রাখেন শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোটের চট্টগ্রাম শাখার সচিব এম, এ ছফা চৌধুরী, সহ-সভাপতি গোলাম রহমান, অধ্যাপক আলী রেজা বাকশিস চট্টগ্রাম জেলা সচিব অধ্যপক মোহাম্মদ ওসমান গনি ,বামাশিস চট্টগ্রাম জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা নুরুল কবির, বাশিস চট্টগ্রাম আঞ্চলিক শাখার সচিব বাবু কমল কান্তি ভৌমিক, চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সচিব মোঃ সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা শাখার সচিব মোঃ আবদুল হান্নান, উত্তর জেলা শাখার সভাপতি মোঃ মোস্তফা, অধ্যাপক শামশুল কবির শামীম। শিক্ষক নেতৃবৃন্দ বলেন, ২৬ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ লক্ষাধিক নিবেদিত প্রাণ শিক্ষক শিক্ষকতার মত মহান পেশায় নিজেদের নিয়োজিত রেখে আগামী দিনের দেশ ও জাতি গঠনের যোগ্য নাগরিক সৃষ্টিতে অবদান রাখা সত্বেও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক সমাজ আজ নানাভাবে বৈষম্য ও অবহেলার শিকার। বক্তারা বলেন, সমযোগ্যতা, সমঅভিজ্ঞতা ও সমপদে নিয়োজিত শিক্ষকদের মাঝে সরকারি বে-সরকারি বৈষম্য বজায় রেখে মানসম্মত শিক্ষা আশা করা যায়না। দেশের সকল সরকারি স্কুল কলেজের শিক্ষক-কর্মচারিরা ২০১৬ সালের জুলাই মাস থেকে ৮ম পে-স্কেলে ৫% ইনক্রিমেন্ট পেলেও বে-সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারি আজ পর্যন্ত ৫% ইনক্রিমেন্ট থেকে বঞ্চিত। বে-সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারিদের আর্থিক সচ্ছলতা, সামাজিক মর্যাদা রক্ষা ও চাকরীর নিরাপত্তা বিধানের জন্য সরকারী স্কুল কলেজের শিক্ষকদের অনুরুপ বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট, চিকিৎসাভাতা, বাড়ীভাড়া, পূর্নাঙ্গ উৎসবভাতা এবং বৈশাখীভাতা প্রদানের জন্য সরকারের নিকট জোর দাবী জানিয়ে শিক্ষক নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, আবদুল মাবুদ, মাহফুজুল ইসলাম, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, এম এ মোমিন হাজারী, নুরুল মোমেন, খোরশেদ আলম, মুহম্মদ মুজিবুর রহমান, মোঃ আক্কাস উদ্দিন, বাবু বিশ্বজিত বসু, মোঃ বদিউল আলম, মোজাহেরুল ইসলাম, মোঃ এনামুল হক প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*