তিন ভাষায় আসছে রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে প্রিয়াঙ্কার ‘নলিনী’

বিনোদন ডেস্ক::
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অসম্পূর্ণ প্রেমের গল্প নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। শুরুতে চলচ্চিত্রটি শুধু ইংরেজি ভাষায় মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু এবার জানা গেলো ছবিটি একইসঙ্গে বাংলা, মারাঠি ও ইংরেজি ভাষায় মুক্তি পাবে।
প্রিয়াঙ্কা চোপড়া প্রযোজিত ও উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায় পরিচালিত ‘নলিনী’ শিরোনামের চলচ্চিত্রটির শুটিং শুরু হতে যাচ্ছে আগামী সেপ্টেম্বরে। এর নাম ভূমিকায় অভিনয় করবেন মারাঠি অভিনেত্রী বৈদেহী পরশুরামি ও রবীন্দ্রনাথের চরিত্রে কলকাতার অভিনেতা সাহেব ভট্টাচার্য। চলচ্চিত্র শুরুর আগে খুব শিগগিরই তাদের নিয়ে ওয়ার্কশপ শুরু করবেন পরিচালক।বৈদেহী পরশুরামি ও সাহেব ভট্টাচার্যনির্মাতা উজ্জ্বল জানান, সেপ্টেম্বরে চলচ্চিত্রটির মূল শুটিং শুরু হবে। তবে এর আগে জুলাইয়ে কয়েকটি লোকেশন ও বৃষ্টি মৌসুমের কিছু গুরুত্বপূর্ণ দৃশ্যের কাজ শেষ করবেন তিনি।
‘নলিনী’ চলচ্চিত্রটির কাজ দেরিতে শুরু হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে নির্মাতা জানান, ‘নলিনী’র স্ক্রিপ্ট বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনুমোদন পেতে বেশ কঠিন পথ অতিক্রম করতে হয়েছে। গত ডিসেম্বরে প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে ইংরেজি ভাষায় চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পরে তা আর বাস্তবায়িত হয়নি। এবার পরিচালক চলচ্চিত্রটি তিন ভাষায় নির্মাণ করতে যাচ্ছেন।
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বয়স যখন ১৭ বছর তখন তিনি বিদেশ ফেরত ২০ বছরের মেয়ে অন্নপূর্ণার কাছে ইংরেজি পড়তেন। অন্নপূর্ণা ছিলেন ড. আত্মারাম পাণ্ডরাংয়ের মেয়ে। মুম্বাইতে তাদের বাসাতেই তখন কবিগুরু থাকতেন। এক পর্যায়ে রবীন্দ্রনাথ ও অন্নপূর্ণার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তবে বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি কবির বাবা দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর। তাই তাদের সম্পর্ক আর পূর্ণতা পায়নি। সেসময় স্কটিশ এক ব্যক্তির সঙ্গে ঘর বেঁধে ইংল্যান্ডে চলে যান অন্নপূর্ণা।
রবীন্দ্রনাথ অন্নপূর্ণাকে ‘নলিনী’ নামে ডাকতেন। তাই এ চলচ্চিত্রটির নামও রাখা হয়েছে ‘নলিনী’। দীর্ঘদিন সময় নিয়ে এ অসম্পূর্ণ প্রেমের কাহিনী লিখেছেন পরিচালকের স্ত্রী সাগরিকা। চলচ্চিত্রটিতে আরও অভিনয় করবেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ভিক্টর বন্দ্যোপাধ্যায় ও সীমা দেশমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*