গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ বিষয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি::
গ্রাম আদালত সম্পর্কে ব্যাপক জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে গণমাধ্যমের ভূমিকা বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা আজ নগরীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় সরকার বিভাগ, চট্টগ্রাম এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। চট্টগ্রাম স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক ও সরকারের উপসচিব ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি সভায় সভাপতিত্ব করেন।
সভায় গ্রাম আদালত সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দেওয়ার পাশাপাশি সরকারি এ সেবা সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টি, গ্রাম আদালতের প্রদত্ত সেবা বর্তমানে শতকরা ১৬ ভাগ থেকে ৭০ ভাগ এ উন্নীতকরণে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করা হয়।
সভায় জানানো হয় দেশের ২৭টি জেলার ১০৮০টি ইউনিয়নে গ্রাম আদালত কার্যকর রয়েছে। পাঁচ সদস্যের এ আদালতের আর্থিক এখতিয়ার ৭৫ হাজার টাকা পর্যন্ত। এ আদালতের মাধ্যমে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে বিনা খরচে দ্রুততম সময়ে আইনি সেবা প্রদান করা হয়।
সভায় আরো বলা হয়, চট্টগ্রাম জেলার ৫টি উপজেলার ৪৬টি ইউনিয়নে গ্রাম আদালত কার্যকর রয়েছে।
ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি তার বক্তৃতায় বলেন, তৃতীয় চোখ হিসেবে গণমাধ্যম জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে। কেননা গণমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশিত বিষয় জনগণ সহজে ধারণ করতে পারে।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে সহকারি কমিশনার উজলা রাণী চাকমা, বাংলাদেশে গ্রাম আদালত স্বক্রিয়করণ প্রকল্পের কমিউনিকেশন্স ও আউটরিচ বিশেষজ্ঞ অর্পনা ঘোষ, জেলা ফ্যাসিটিটেটর উজ্জল কুমার দাস চৌধুরী বক্তৃতা করেন।
বাংলাদেশ সরকার, ইউএনডিপি ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের যৌথ সহযোগিতায় এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রামে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মী অংশগ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*