আম্পায়ারকে চোর বলায় সেরেনার জরিমানা

স্পোর্টস ডেস্ক ::
খেলায় হারজিত থাকে। কিন্তু সেক্ষেত্রে যে কোনো খেলার নিয়মের বাইরে গেলে জরিমানায় পড়তে হয়। আর তেমনই এক জরিমানায় পড়েছেন টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামস।
যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে নারীদের ফাইনালটি উত্তেজনাকর এক একটি মুহূর্ত দিয়ে শেষ হয়। ২৪তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা জিততে পারেননি সেরেনা উইলিয়ামস। প্রথম জাপানি তারকা হিসেবে নাওমি ওসাকা ঘরে তুললেন প্রথম কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যাম ট্রফি। তবে সবকিছু ছাপিয়ে আম্পায়ারকে ‘মিথ্যাবাদী ও চোর’ বলেন সেরেনা। তার অভিযোগ, তিনি গ্লোবাল আইকন হয়েও বৈষম্যের শিকার।
শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে সেরনাকে ৬-২ ও ৬-৪ সেটে হারান ওসাকা। প্রথম সেট হেরে গিয়ে মেজাজ হারিয়ে ফেলা সেরেনা এক পর্যায়ে টেনিস র‍্যাকেট ছুড়ে মারেন মাটিতে। বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন চেয়ার আম্পায়ার কার্লোস রামোসের সাথে। বাধ্য হয়েই নাওমিকে এক গেম পেনাল্টি দেন আম্পায়ার। ফলে ৫-৩ গেমে এগিয়ে যান নাওমি।
পেনাল্টি দেয়াতেই রাগে-ক্ষোভে আম্পায়ারকে মিথ্যাবাদী ও চোর বলেন সেরেনা। আম্পায়ারকে তার কাছে ক্ষমাও চাইতে বলেন এই মার্কিন টেনিস কন্যা।
তার এমন আচরণে শাস্তি দিয়েছে টেনিস ফেডারেশন। ম্যাচ চলাকালীন তিনটি অপরাধের জের ধরে ১৭ হাজার ডলার জরিমানা গুনতে হবে আমেরিকান এই টেনিস তারকাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*