চার দিন ব্যাপী ঈদে মিলাদুন্নবী (সঃ) উদ্বোধন 


প্রেস বিজ্ঞপ্তি::
বায়তুশ শরফ আনজুমনে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ কর্তৃক পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) উদযাপন উপলক্ষে ৪ দিন ব্যাপি ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, পাখ-পাখালীর
আসর, শানে মোস্তফা (স.), গুণীজন সংবর্ধনা ও আজিমুশশান ওয়াজ মাহফিলের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান আজ ১৮ নভেম্বর রোজ রবিবার সকাল ৯ টায় বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স বায়তুশ শরফের পীর ছাহেব বাহরুল উলুম আল্লামা শাহ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন (ম.জি.আ) এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বায়তুশ শরফ আদর্শ কামিল (এম.এ) মাদ্ধসঢ়;রাসার অধ্যক্ষ বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ ও গবেষক প্রফেসর ড. মাওলানা সাইয়েদ মুহাম্মদ আবু নোমান। মিলাদ শরীফ পাঠ করেন- বায়তুশ শরফ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নুরুল ইসলাম, অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- শায়খুল হাদীস আল্লামা জয়নুল আবেদীন, মুহাদ্দিস মাওলানা জসিম উদ্দিন, মুহাদ্দিস মাওলানা মুহাম্মদ জুনাইদ, মজলিসুল ওলামা বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা মামুনুর রশিদ নুরী,
মাওলানা কাজী জাফর আহমদ, বায়তুশ শরফ আন্ধসঢ়;জুমনে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ এর সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আমান উল্লাহ খান ও আলহাজ্ব মীর মুহাম্মদ আনোয়ার আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব লুৎফল করিম, ঈদে মিলাদুন্নবী স. উদ্ধসঢ়;যাপন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মাওলানা ওবায়দুল্লাহ, এ.বি.কে মহিউদ্দিন শামীম, আলহাজ্ব মিফতাহুল হুদা, আলহাজ্ব আহমদ হোসাইন, আলহাজ্ব নাজেরুল হক, উপাধ্যক্ষ মাওলানা আমিনুল ইসলাম, মাওলানা আবু তাহের, মাওলানা ফরহাত আলম, মাওলানা আবদুল খালেক, মাওলানা সিরাজুল হক নদভী, মাওলানা মোহাম্মদ মূসা, আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক, ইঞ্জিনিয়ার আবু তাহের, আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন, হাফেজ মোহাম্মদ আমান উল্লাহ, শাহজাদা মাওলানা সালাহ উদ্দিন মোহাম্মদ বেলাল, হাফেজ মাওলানা নিজাম উদ্দিন, মুহাম্মদ আবদুল খালেক, মাওলানা আবদুশ শাকুর, মাওলানা নুর উদ্দিন মাহমুদ প্রমুখ।
অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন- মাওলানা কাজী শিহাব উদ্দিন। সভাপতির ভাষণে বায়তুশ শরফের পীর ছাহেব বাহরুল উলুম আল্লামা শাহ মোহাম্মদ কুতুব
উদ্দিন (ম.জি.আ) মহান আল্লাহ তায়লার ভাষায় উপস্থাপন করে বলেন-মানবজীবনের প্রতিটি অধ্যায়ে রাসুলে পাক (সঃ) অন্যতম সর্বশ্রেষ্ঠ আদর্শ। আল্লাহর পিয়ারা হাবিব হযরত মুহাম্মদ মোস্তফা (সঃ) এর শান-মান আল্লাহ তায়ালা নিজেই সমুন্নত করেছেন। আল্লাহ তায়ালা তাঁকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বশ্রেষ্ঠ নবী হিসেবে মনোনীত করেছেন। তাঁর মহান আদর্শ ও পুত-পবিত্র চরিত্রের জন্য তিনি মানবজাতির ইতিহাসে সর্বোত্তম ব্যক্তি। মানবজীবনে তার সিরাতের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। আইয়্যামে জাহিলিয়াতের ঘোর অন্ধকার যুগে আল্লাহ তায়ালা তাকে প্রেরণল করে বিশ্বমানবতার প্রতি বিরাট করুণা করেছেন। কারণ সে সময়কার সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় ও নৈতিক অবস্থার চরম অবনতি হয়েছিল। অবস্থা এতই নাজুক পর্যায়ে পৌছেছিল যে, হাতে বানানো দেব-দেবীর পূজায় আত্মনিয়োগ করেছিল। তিনি তাঁর আদর্শ ও পূত-পবিত্র চরিত্রের মাধ্যমে তাঁর শ্রেষ্ঠত্বের প্রমাণ রেখেছেন। রাসূলে পাক (সঃ) পৃথিবীর সবচেয়ে বর্বর একটি জাতিকে শ্রেষ্ঠ জাতিতে পরিণত করে পৃথিবীতে অনাগতের জন্য ও এক অতুলনীয় দৃষ্ট্রান্ত স্থাপন রেখে গেছেন। রাসূল (সঃ) বিশ্ব জাহানে শান্তি প্রতিষ্ঠার এক অনন্য নজির স্থাপন
করেন। শুভেচ্ছা বক্তব্যে প্রিন্সিপাল প্রফেসর ড. মাওলানা সাইয়েদ মুহাম্মদ আবু নোমান বলেন-সমগ্র কুরআনই ছিল রাসুলুল্লাহ (সঃ) এর পবিত্র চরিত্র। কুরআন হলো শব্দ ও বাক্যের সমষ্টি, আর মুহাম্মদ (সঃ) এর চরিত্র তার ব্যাখ্যা। আল্লাহ তায়ালা তার প্রিয় হাবিবকে প্রেরণ করে বিশ্ব মানবতাকে মুক্তি দিয়েছিলেন।
এ বছর বায়তুশ শরফ আন্ধসঢ়;জুমনে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে যে চারজন বিশিষ্ট গুণী ব্যক্তিকে সংবর্ধনা ও বায়তুশ শরফ স্বর্ণপদক প্রদান করবেন তারা হলেন- ১) দ্বীনি শিক্ষার প্রচার-প্রসার, ইলমে হাদীস চর্চা ও শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে বিশেষ ভূমিকা পালনের স্বীকৃতি স্বরূপ-আলহাজ্ব মাওলানা আ.ন.ম তাজুল ইসলাম, অধ্যক্ষ, দৌলতগঞ্জ গাজীমুড়া কামিল (এম.এ) মাদ্রাসা, লাকসাম, কুমিল্লা। ২) প্রকৌশল শিক্ষা, প্রশাসনিক ক্ষেত্র ও ব্যাংকিং খাতে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন এবং সামাজিক উন্নয়নে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ- ড. ইঞ্জিনিয়ার রশীদ আহমদ চৌধুরী, চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক লি. ইউনুস ট্রেড সেন্টার, লেবেল ২২, ৫২-৫৩, দিলকুশা বা/এ, ঢাকা-১০০০। ৩) আর্তমানবতার সেবা, শিক্ষার সম্প্রসারণ, ইসলামি সংস্কৃতির বিকাশ ও মসজিদ- মাদরাসার খেদমতে অনন্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ আলহাজ্ব মোহাম্মদ আবদুল আউয়াল চেয়ারম্যান, এম কে আর গ্রুপ, ১০০/এ, আগ্রাবাদ বা/এ, চট্টগ্রাম-১০০০। ৪) চিকিৎসা সেবা ও দুস্থ-মানবতার কল্যাণে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ- ডা. মাহমুদুর রহমান ট্রমা ও অর্থোপেডিক সার্জন, লোহাগাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, চট্টগ্রাম।
উল্লেখ্য যে, আগামীকাল ১৯ নভেম্বর রোজ সোমবার (১) শিশু বিভাগ- শিশু থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত সকাল ৯ টায় ক) ক্বেরাত প্রতিযোগীতা, সকাল ১০.৩০ এ খ) হাম্দাদ না’ত প্রতিযোগীতা, সকাল ১১.৩০ এ গ) ছড়া ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগীতা (২) কিশোর বিভাগ- চতুর্থ থেকে ষষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত দুপুর ১২.৩০ এ ক) ক্বেরাত
প্রতিযোগীতা, দুপুর ২.৩০ এ খ) হামদাদ ও না’ত প্রতিযোগীতা, বাদে আছর গ) কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগীতা এবং বাদে মাগরিব রাসূল স. এর উপর নিবেদিত
কবিতা,গজল, ও না’তের আকর্ষনীয় অনুষ্ঠান শানে মোস্তফা স. চট্টগ্রাম বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স এ অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত অনুষ্ঠানে বায়তুশ শরফ আনজুমনে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ এর পক্ষ থেকে সর্বস্থরের মুসলিম ভাইদের প্রতি দাওয়াত রহিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*