রাঙামাটিতে “মাদক ও তার প্রতিকার” বিষয়ক মতবিনিময় সভা

রাঙামাটি সংবাদদাতা::
পাহাড়ে মাদকের অবাধ ব্যবহার বন্ধে পারিবারিক উদ্যাগের পাশাপাশি অত্রাঞ্চলে কর্মরত সরকারী-বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা এনজিও গুলোর মাধ্যমে তৃণমুল পর্যায়ে সচেতনতা বৃদ্ধির কার্যক্রম গ্রহণ করার আহবান জানিয়েছেন রাঙামাটির বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারী-বেসরকারী প্রতিনিধিবর্গ।
মঙ্গলবার বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্রাক এর আয়োজনে “মাদক ও তার প্রতিকার” নিয়ে রাঙামাটিতে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এই মতামত উঠে আসে। উক্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম শফি কামাল এর সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সিরাজুল ইসলাম, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উত্তম কুমার দাশ, জেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ খোরশেদ আলম, রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মোহাম্মদ রুহুল আমিন, ব্র্যাকের রাঙামাটি কেন্দ্রের পরিচালক সমীর কুন্ড, বাংলাদেশ বেতারের বার্তা প্রতিনিধি সাংবাদিক নন্দন দেবনাথসহ বিভিন্ন চিকিৎসক, সমাজ সেবা কর্মকর্তা, এনজিও সংস্থার প্রতিনিধিবর্গ উক্ত মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করে পাহাড়ে মাদকের অবাধ বিস্তার রোধে বিভিন্ন সুপারিশমালা তুলে ধরেন। সভায় ব্র্যাকের প্রতিনিধি সমীর কুন্ড জানান, ব্র্যাক পার্বত্যাঞ্চলের দরিদ্র জনগোষ্ঠির ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করছে দীর্ঘ বছরধরে। এরই আলোকে পাহাড়ের নতুন প্রজন্মকে মাদকের ভয়াবহ ছৌবল থেকে রক্ষায় কিভাবে কাজ করা যায় এবং এই লক্ষ্যে করনীয় নির্ধারনে ব্র্যাকের উদ্যোগে মাদক ও তার প্রতিকার নিয়ে মতবিনিময়ের আয়োজন করা হয়েছে। এখান থেকে প্রাপ্ত সুপারিশমালা উদ্বর্তন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ করা হবে। এরই আলোকে সেখান থেকে প্রাপ্ত নির্দেশনানুসারে পাহাড়ে মাদকের অবাধ ব্যবহারবন্ধে এবং যুব সমাজকে মাদকের কুফল সম্পর্কে অবহিতকরণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*