৯৮ রানেই গুটিয়ে গেল রংপুর রাইডার্স


স্পোর্টস ডেস্ক ::
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) উদ্বোধনী ম্যাচে শুরুতে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে মাত্র ৯৮ রান সংগ্রহ করেছে রংপুর রাইডার্স। ব্যাট হাতে ৪৭ বলে ৪৪ রান করে দলের একমাত্র সফল ব্যাটসম্যান রবি বোপারা। বল হাতে রংপুরের ইনিংসে ধস নামানোয় বড় ভূমিকা রেখেছেন চিটাগাং ভাইকিংসের ফ্রাইলিংক। মাত্র ১৪ রানেই ৪ উইকেটের পতন ঘটিয়েছেন এই পেসার।
ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার অ্যালেক্স হেলসের উইকেট হারায় রংপুর। দলীয় ৩ রানে রানের খাতা খোলার আগেই চিটাগাং ভাইকিংসের পেসার ফ্রাইলিংকের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন হেলস। ২ বল পরেই ফ্রাইলিংকের বলেই বোল্ড হয়ে ফেরেন মোহাম্মদ মিঠুন (০)।
মাত্র ৩ রানেই ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যাওয়া রংপুর এরপর হারায় অভিজ্ঞ প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান রাইলি রুশোর উইকেট। আবু জায়েদের অফ-স্ট্যাম্পের বাইরের বল কাট করতে গিয়ে উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ শাহজাদের হাতে ক্যাচ তুলে দেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান (৭)।
উইকেট পতনের মিছিল অবশ্য এরপরও থামেনি। ফ্রাইলিংকের বলে তুলে মারতে গিয়ে ডিপ ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগে থাকা সানজামুল ইসলামের ক্যাচে পরিণত হন রংপুরের ওপেনার মেহেদি মারুফ। মাত্র ১৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় মাশরাফিবাহিনী।
মারুফের বিদায়ের পর হাওয়েলকে (৮) আবু জায়েদের ক্যাচে পরিণত করে এবারের বিপিএলে নিজের প্রথম উইকেটের দেখা পান স্পিনার নাঈম হাসান। পরে ফরহাদ রেজাকেও (৩) ফেরান তিনি। নির্ধারিত ৪ ওভার বল করে ২.৫০ ইকোনমি রেটে মাত্র ১০ রান খরচে ২ উইকেট তুলে নিয়ে এখন পর্যন্ত দিনের অন্যতম সেরা বোলার তিনি।
রংপুরের অধিনায়ক মাশরাফি মাত্র ১১ বল মোকাবেলা করে ২ রান যোগ করে তরুণ পেসার খালেদ আহমেদের বলে উইকেটরক্ষক শাহজাদের হাতে ক্যাচ তুলে দেন। এরপর মাত্র ৩৫ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে বসা রংপুরের ইনিংস টেনে তোলার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন ইংলিশ তারকা রবি বোপারা। সোহাগ গাজীকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংস মেরামত শুরু করেন তিনি।। তবে ১৭ বলে ৩ চারে ২১ রান করে ফ্রাইলিংকের চতুর্থ শিকার হয়ে সোহাগ গাজী বিদায় নিলে ফের চাপটা এসে পড়ে বোপারার কাঁধে।
অপর প্রান্তে উইকেট পতনের মিছিলে এক প্রান্ত আগলে ৪৭ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৪৪ রান করে ২০তম ওভারে আবু জায়েদের বলে মোসাদ্দেক হোসেনের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন বোপারা। ওই ওভারের শেষ বলে রানআউটের শিকার হয়ে বিদায় নেন রংপুরের শেষ ব্যাটসম্যান নাজমুল ইসলাম অপু। মাত্র ৯৮ রানেই শেষ হয় রংপুর রাইডার্সের ইনিংস।
৪ ওভার বল করে মাত্র ১৪ রানে ৪ উইকেট তুলে নিয়েছেন চিটাগাং ভাইকিংসের পেসার ফ্রাইলিংকবল হাতে চিটাগাং ভাইকিংসের সেরা পারফর্মার রোবি ফ্রাইলিংক। ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান খরচে ৪ উইকেট তুলে নিয়েছেন এই পেসার। ৪ ওভার বল করে মাত্র ১৫ রান খরচে ১ উইকেট তুলে নিয়ে রংপুরের ব্যাটিং ইনিংস ধসিয়ে দিতে বড় ভূমিকা রাখেন খালেদ। ৪ ওভারে মাত্র ১০ রান খরচে ২ উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন নাঈম হাসান। আর ৪ ওভারে ৩০ রান খরচে ২ উইকেট পেয়েছেন আবু জায়েদ।
শনিবার (৫ জানুয়ারি) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্স ও চিটাগাং ভাইকিংস। টসে জিতে রংপুর রাইডার্সকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন চিটাগাং ভাইকিংসের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। প্রথম ম্যাচে রংপুরের একাদশে নেই ক্রিস গেইল। আর সিলেট পর্বে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন এবি ডি ভিলিয়ার্স।
এই ম্যাচ দিয়ে পাঁচ বছর পর বিপিএল খেলতে নামছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। নতুন করে শুরুটা জয় দিয়েই করতে চাইবেন এই অভিজ্ঞ ডানহাতি ব্যাটসম্যান।
দুই দলের সর্বশেষ পাঁচবারের দেখায় ৩ ম্যাচে জয় পেয়েছে রংপুর রাইডার্স আর ২ ম্যাচে জয় পেয়েছে চিটাগাং ভাইকিংস।
রংপুর রাইডার্সের একাদশ:
মোহাম্মদ মিঠুন (উইকেটরক্ষক), রাইলি রুশো, রবি বোপারা, মাশরাফি মুর্তজা (অধিনায়ক), নাজমুল ইসলাম অপু, সোহাগ গাজী, অ্যালেক্স হেলস, মেহেদি মারুফ, শফিউল ইসলাম, ফরহাদ রেজা বেনি হাওয়েল।
চিটাগাং ভাইকিংসের একাদশ:
মোহাম্মদ আশরাফুল, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক/উইকেটরক্ষক)), সিকান্দার রাজা, মোসাদ্দেক হোসেন, রোবি ফ্রাইলিংক, খালেদ আহমেদ, আবু জায়েদ, সানজামুল ইসলাম, মোহাম্মদ শাহজাদ, নাঈম হাসান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*