চমেক হাসপাতালের সাড়ে ৮ একর জমি উদ্ধারের সিদ্ধান্ত

স্টাফ রিপোর্টার :: বেদখল হয়ে যাওয়া চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ৮.৮৩৬ একর জমি উদ্ধার ও সীমানা প্রাচীর নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ এই জমি উদ্ধারে জরিপ কাজে সহযোগিতা করবে। এজন্য সার্ভে কর্মকর্তাদের দায়িত্ব দেয়া হবে। এছাড়া দখলে থাকা জমির ৪টি স্থান নিয়ে দখলদারদের সাথে চলমান বিরোধ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে প্রয়োজনে চসিকের মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবীদের দায়িত্ব দেয়া হবে।
বুধবার (৯ জানুয়ারি) চমেক হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির তৃতীয় সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
চমেক হাসপাতালের নামে অধিগ্রহণকৃত জমির মধ্যে বর্তমানে দখলে আছে ৭২ একর।
চমেক সম্মেলন কক্ষে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ১০০ বেডের বার্ন ইউনিট ও ১০০ বেডের ক্যান্সার ইউনিট স্থাপন, ৫০০ বেডের নতুন হাসপাতাল ভবন নির্মাণ, ডেন্টাল কলেজ প্রতিষ্ঠা, ৫০ হাজার লিটার ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন জলাধার নির্মাণ, আধুনিক লন্ড্রি প্ল্যান্ট স্থাপন, স্টোর কমপ্লেক্স নির্মাণ, মোটর সাইকেল পার্কিং শেড নির্মাণ ও গাড়ির পার্কিং উন্নয়ন, ইন্টার্নি হোস্টেল নির্মাণ, বহুতল আবাসিক ভবন নির্মাণ, বহুতল চিকিৎসক ও নার্স ডরমেটরি নির্মাণ করার সিদ্ধান্তও নেয়া হয়।
চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমদ এর পরিচালনায় সভায় হাসপাতালের গেইট থেকেই দালাল নিয়ন্ত্রণ করার কথাও জানান মেয়র। তিনি হাসপাতালের ৩টি গেইটের সামনের রাস্তা সংস্কারসহ হাসপাতালের সব টয়লেট আধুনিকায়নের ঘোষণা দেন।
সভায় বক্তব্য দেন চমেক অধ্যক্ষ ডা. সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সভাপতি মো. কলিম সরওয়ার, সিএমপি প্রতিনিধি (এডিসি-নর্থ) মিজানুর রহমান, বিএমএ চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খান, সাধারণ সম্পাদক ডা. ফয়সল ইকবাল চৌধুরী, চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. মোহাম্মদ আবুল কাশেম, পিডব্লিউডি’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী উজির আলী, প্রাইভেট প্র্যাকটিশনারস এর সভাপতি ডা. শেখ শফিউল আজম, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক মো. শহিদুল ইসলাম, চমেক সেবা তত্ত্বাবধায়ক শিপ্রা চৌধুরী, চমেক আবাসিক সার্জন ডা. মঈন উদ্দিন মাহমুদ, নার্সিং অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রতন কুমার নাথ, ২য় শ্রেণি প্রতিনিধি প্রণব কুমার হাওলাদার, চমেক হাসপাতালের ৩য় শ্রেণি মেডিকেল সরকারি কর্মচারি সমিতির সভাপতি মো. সাদেকুর রহমান চৌধুরী ও ৪র্থ শ্রেণি সরকারি কর্মচারী সমিতির সভাপতি রতন আলী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*