রোহিঙ্গাদের জন্য সেফজোন তৈরি করতে হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী


ঢাকা অফিস::
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রোহিঙ্গাদের জন্য রাখাইনে সেফজোন তৈরি করতে হবে। আমরা এ বিষয়ে নতুন করে কাজ শুরু করছি।
রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর হোটেল কন্টিনেন্টালে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।
হোটেল কন্টিনেন্টালে ‘বাংলাদেশ ও মানবাধিকার’ -শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও ঢাকার জাতিসংঘ অফিস।
সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। এতে আরো বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘের বাংলাদেশে আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো।
সেমিনারের উদ্বোধনী পর্ব শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রোহিঙ্গাদের জন্য রাখাইনে সেফজোন তৈরি করতে হবে। আমরা এটা নিয়ে নতুন করে কাজ করছি। সেফজোনে ভারত, চীনসহ আশিয়ান দেশের সদস্যরা সহযোগিতা দিতে পারে। তিনি আরো বলেন, মানবাধিকার ইস্যুতে বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে রোল মডেল।
মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় না দিলে সেখানে গণহত্যা হতো। আর সেটা হলে বিশ্বনেতারা মুখ দেখাতে পারতেন না।
সেমিনারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সরকার মানবাধিকার রক্ষায় সচেষ্ট। তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গা পুনর্বাসন দীর্ঘায়িত হলে বাংলাদেশে উগ্রপন্থার সৃষ্টি হতে পারে।
সেমিনারে জাতিসংঘের বাংলাদেশে আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো বলেন, বাংলাদেশে নতুন সরকার ক্ষমতায় এসেছে। আমাদের প্রত্যাশা তারা সার্বজনীন মানবাধিকারের সব ধারা সমুন্নত রাখবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*