আনোয়ারায় পার্চিং উৎসবের সুফল পাচ্ছে কৃষকরা


এস,এম,সালাহ্উদ্দীন আনোয়ারা ::
ধানের জমিতে ডাল পুতুন,পোকার আক্রমন রোধ করুন। এই স্লোগান কে সামনে রেখে সারা দেশের ন্যায় আনোয়ারা উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় কৃষকদের নিয়ে পার্চিং উৎসব পালন করা হয়। মাঠে কৃষকদের সতেজপূর্ত অংশ গ্রহনে আনোয়ারায় পার্চিং উৎসব পালিত হয়। ইতি মধ্যে পার্চিং উৎসবের সুফল পাচ্ছে আনোয়ারার হাজার হাজার কৃষক।উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এবার বোরো মৌসুমে উপজেলার এগারো ইউনিয়নে চাষাবাদ হয়েছে মোট ৬ হাজার ৩০০ হেক্টর। আর এসব ফসলি জমির উপর উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তাদের আয়োজনে চলে পার্চিং উৎসব।পার্চিং উৎসবের ফলে পোকা ধমনে কৃষকরা বেশ সাফল্য পাচ্ছে। উপজেলার কৃষকরা মনে করেন পার্চিং প্রাকৃতিক উপায়ে পোকা থেকে ফসল কে রক্ষা করার চমৎকার এক পদ্ধতি। আর এই পদ্ধতি কে কৃষকরা বেশ উৎসাহ ও উদ্দীপনার সাথে পালন করায় ফসল কে কীটনাশক ছাড়া পোকা ধমন করা যাচ্ছে।
উপজেলার ১০ হাইলধর ইউনিয়নের কৃষক মালঘর সি.আই.জি সমিতির সেক্রাটারি মোহাম্মদ মহিউদ্দীন বলেন,ফসলে ডাল পুতলে বেশ কয়েকটি সুবিধা পাওয়া যায়,বিশেষ করে কীটনাশক ছাড়া পোকা ধমন,আর ফসলে মাঝে মাঝে ডাল পুতে থাকায় বড় বড় বক গুলো ফসল নষ্ট করতে পারে না।পার্চিংর সুফল ও ব্যবহার নিয়ে কথা হয় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসানুজ্জামানের সাথে।তিনি বলেন, জমিতে ডাল পুতে থাকলে পাখি এসে বসে আর পাখি গুলো ফসল ধ্বংসকারী পোকা গুলো খেয়ে পেলে।ফলে কীটনাশক তুলনামূলক কম ব্যবহার করতে হয়।ডালে বসে পাখি যে মল ত্যাগ করে তা জমিতে জৈব সার হিসাবে ব্যবহার হয়।তিনি আরো বলেন,কৃষকরা এই বিষয়গুলো নিয়ে যেন আরো সচেতন হয় তার জন্য আমরা কৃষকদের নিয়ে পার্চিং উৎসব করেছি,যার সুফল ইতি মধ্যে কৃষকরা বুঝতে পেরেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*