চকরিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার কৃষি খাস জমি পেলেন ৩৩টি পরিবার

চকরিয়া প্রতিনিধি :: চকরিয়া উপজেলা ভূমি অফিসের আয়োজনে বুধবার অনুষ্ঠিত হয়েছে ভুমি সেবা সপ্তাহ। অনুষ্ঠানের প্রথমদিনে উপজেলার ৩৩টি ভুমিহীন পরিবারকে দেওয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ কর্মসুচির আওতায় কৃষি খাসজমি। চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা সহকারি কমিশনারের (ভুমি) হাত থেকে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা উপহার জমির দলিল হাতে পেয়ে আনন্দ অশ্রু ফেলেছেন অনুষ্ঠানে সমবেত ভূমিহীন হত দরিদ্র আমিনুল ইসলাম ও সুফিয়া বেগম।
আমিনুল সুফিয়া চকরিয়া উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের পাশাপাশি গ্রামের বাসিন্দা। অন্যের কাছ থেকে জমি বর্গা নিয়ে চাষ করতেন। চাষের ফসল বিক্রি করে কোনমতে তাঁরা পরিবার সদস্যদের জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন এতদিন। গতকাল এই দুই নারী পুরুষ সরকারিভাবে কৃষি জমির দলিল হাতে পেয়ে মহাখুশি। তাদের চোখে আনন্দাশ্রু। এক পর্যায়ে মে উঠে মাইক ধরে কিছু বলতে গিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন তারা। সবার অনুরোধে সামান্য যা বলেছেন তা হল-আমরা স্বপ্নেও ভাবিনি একটি টাকা খরচ না করেও জীবনে কোনদিন কৃষি জমির মালিক হবো। সেই স্বপ্ন পূরণ করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাদের দাবি, প্রশাসন নিরপেক্ষ থাকায় আমরা জমির মালিক হতে পেরেছি।
‘রাখব নিস্কণ্টক জমি বাড়ি-করব সবাই ই-নামজারী’ ও ‘আশ্রয়ণের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার’ দুটি শ্লোগানের বাস্তবতাকে সফল করতে কক্সবাজারের চকরিয়ায় বুধবার থেকে শুরু হয়েছে ভূমি সেবা সপ্তাহ। প্রথমদিনেই ভূমিহীন বিএমচর ইউনিয়নের ৩৩ পরিবারকে দেওয়া হয়েছে কৃষি খাস জমির দলিল ও নামজারী খতিয়ান। এই কার্যক্রমের আওতায় পর্যায়ক্রমে চকরিয়া উপজেলার কাকারা, লক্ষ্যারচর ও হারবাং ইউনিয়নের কৃষি খাসজমি বন্দোবস্তপ্রাপ্ত ভূমিহীন পরিবার সমুহের মধ্যে দলিল ও নামজারী খতিয়ান হস্তান্তর করা হবে।
চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সম্মেলনকক্ষ মোহনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপকারভোগী নারী-পুরুষের মাঝে জমির দলিল হস্তান্তর করা হয়েছে।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাতের স ালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, চকরিয়া সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ একেএম গিয়াস উদ্দিন, চকরিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম আতিক উল্লাহ, চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এমআর মাহমুদ, মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ আহমদ, বিএমচর ইউপি চেয়ারম্যান এসএম জাহাঙ্গীর আলম, ভূমি বন্দোবস্ত কমিটির সদস্য আলহাজ্ব সেলিম উল্লাহ, চকরিয়া আইনজীবি সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুল কবির ও মুজিবুর রহমান।
অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ইউএনও নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, জমিদার প্রথা উচ্ছেদ করে প্রজাস্বত্ব আইন হলেও ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির ভেতরে বাইরে খাস জমিগুলো প্রভাবশালীদের দখলে ছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সেই জমি উদ্ধার করে ভূমিহীনদের দেয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*