মারমাদের সাংগ্রাই জলকেলি’র মধ্যদিয়ে রাঙ্গামাটিতে শেষ হলো বৈসাবি উৎসব

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি :: মারমা সম্প্রদায়ের সামাজিক উৎসব সাংগ্রাই পানি খেলা আযোজনের মধ্য দিয়ে রাঙ্গামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জাতি গোষ্ঠীর পুরনো বর্ষ বিদায় ও নতুন বর্ষ বরণের বৈসাবি উৎসব শেষ হয়েছে। একে অন্যের গায়ে পানি ছেটানোর মধ্যে দিয়ে মারমা সম্প্রদায়ের সামাজিক উৎসব সাংগ্রাই পানি খেলা আজ শেষ হয়েছে। এছাড়াও রাঙ্গামাটির বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন সংগঠন সপ্তাহ ব্যাপী বৈসাবী উৎসব পালন করবে। এরআগে কেন্দ্রীয়ভাবে আয়োজিত এই সাংগ্রাই উৎসবে মঙ্গল ঘন্টা বাঁজিয়ে জলকেলি’র উদ্বোধন করেন রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার। এই পানি খেলার মধ্যে দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জাতি গোষ্ঠির বর্ষ বিদায় ও বরণের বৈসাবি উৎসব শেষ হয়েছে। আজ সোমবার রাঙ্গামাটির কাপ্তাই উপজেলার নারানগিরি হাই স্কুল মাঠে মারমা সংস্কৃতি সংস্থা (মাসস) রাঙ্গামাটির কেন্দ্রীয়ভাবে এই জলোৎসবের আয়োজন করে।
ঐতিহ্যবাহি এই উৎসবে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, রাঙ্গামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ রিয়াদ মেহমুদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এস,এম শফি কামালসহ গান্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
মারমা তরুন-তরুনীরা একে অপরকে পানি ছিটিয়ে শুরু করে পানি খেলার। মারমা তরুন তরুণীরা কয়েকটি দলে অংশ নেয় পানি খেলায়। জল উৎসবের পাশাপশি চলে সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। কয়েক হাজার মারমা নারী পুরুষ এ উৎসবে যোগ দেয়।
মারমারা পুরাতন বছরকে বিদায় আর নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে এই জল উৎসব করে থাকে। এটি মারমাদের প্রধান সামাজিক অনুষ্ঠান হওয়ায় পালন করা হয় বেশ জাঁকজমকভাবে।
পুরাতন বছরের সকল দুঃখ, গ্লানি ধুয়ে মুছে নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে এ জল উৎসব সমবেত হয় পাহাড়ের মারমা সম্প্রদায়ের মানুষেরা। পাহাড় থেকে সকল অপশক্তি দুর হবে এমন টাই আশা করেছেন মারমা সাংস্কৃতিক সম্প্রদায়ের নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*