চকরিয়া উপজেলা পরিষদের স্থগিত কেন্দ্রে নির্বাচন সম্পন্ন

চকরিয়া প্রতিনিধি :: ৫ম চকরিয়া উপজেলা পরিষদের স্থগিত পালাকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে শুধুমাত্র মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৭ এপ্রিল সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত সময়ে নির্বাচন অনুষ্টিত হয়েছে। তবে নির্বাচনে ভোটারের উপস্থিতি ছিল খুবই কম। কোন ধরণের আগ্রহ ছিলনা ভোটারের।
নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং অফিসার মোঃ নুরুল আবছার জানিয়েছেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী জেসমিন হক জেসি চৌধুরী ইতিপূর্বে গত ১৮ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে কলস প্রতীক নিয়ে ৩৪ হাজার ২৯৪ ভোটে এগিয়ে ছিলেন এবং স্থগিত পালাকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ফলাফলে ৩১১ ভোট পেয়ে সর্বমোট ৪৬০৫ ভোটে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী বর্তমান উপজেলা নারী ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাফিয়া বেগম সম্পা ফুটবল প্রতীকে পেয়েছেন ২৪৯ ভোট। তিনিও ইতিপূর্বে গত ১৮ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ৯৮টি কেন্দ্রে পেয়েছিলেন ২৯ হাজার ৯০৩ ভোট। ফলে তার প্রাপ্ত ভোট দাঁড়ায় ৩০ হাজার ১৫২ ভোট।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাচনের রিটার্ণিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার বশির আহমদ জানান, স্থগিত পালাকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নারী-পুরুষ মিলে ভোটার ছিল ৪৭৬৮ জন, তন্মধ্যে ভোট কাস্ট হয়েছে ৫৬৪টি। সেখান থেকে নষ্ট হয়েছে ৪টি ভোট। ইতিপূর্বে গত ১৮ মার্চ’১৯ ইং নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয়ের মধ্য দিয়ে একযোগে ৯৯টি কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্টিত হয়েছিল। কিন্তু কিছু অনাকাংখিত গোলযোগের কারণে ওই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত করা হয় এবং ৯৮ টি ভোট কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। কিন্তু নির্বাচনের ফলাফলে এগিয়ে থাকা প্রার্থীর মধ্যে স্থগিত কেন্দ্রের ভোটার কিছু বেশি থাকায় নির্বাচন বিধি অনুযায়ী শুধুমাত্র স্থগিত কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠান করা হয়েছে। তিনি নির্বাচনে প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী জেসমিন হক জেসি চৌধুরীকে বেসরকারীভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। তবে এ নির্বাচনকে স্থানীয় সচেতন মহল নিয়ম রক্ষার নির্বাচন বলে মনে করেন।
গত ১৮ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী ও পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মকছুদুল হক ছুট্টো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*