নগরীতে প্রধানমন্ত্রী ও নেতাদের ছবি টাঙ্গিয়ে ফুটপাত দখল


স্টাফ রিপোর্টার::
নগরীর পুরাতন রেল ষ্টেশন বা ষ্টেশন রোড়,চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানার অন্তরগত অত্যন্ত পরিচিত এই এলাকাটি একসময় মাদক সেবী ও মাদকদ্রব্য বিক্রয় এবং চোর চেচোরদের অবয়ারন্ন ছিল,এমন কোন অবৈধ কাজ নাই যা এখানে হয়না, সম্প্রতি সিটি মেয়র আ জ ম নাছির যখনই ফুটপাত দখল মুক্ত করা শুরু করেছে ঠিক তখনই নতুন কৌশল শুরু করেছে এই অবৈধ দখল বাজরা।
সরজমিনে দেখা গেছে পরিপুর্ন ফুটপাত গ্রাস করেই ক্লান্ত হয়নি এই দখল বাজরা মেইন রোড়ে গাড়ি চলাচলের রাস্তা প্রর্যন্ত দখল করে পেলেছে, কিন্তু প্রশাসন বা সংশিষ্ট কতৃপক্ষের চোখে কি এই গুলো পড়েছে না নাকি বিশেষ ফায়দার কারনে দেখেও না দেখার বান করছে, ছবিতে উঠে এসেছে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি এছাড়া সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের,শিক্ষা মন্ত্রী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল,সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের ছবি ফুটপাতের দেওয়ালে টাঙ্গানো,
সরকারের সিন্দান্ত অনুযায়ী সরকারি,আধা সরকারি সকল অফিসে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি লাগাতে হবে কিন্তু এটা কার অফিস কেনই বা রাস্তার উপরে দেশের শিষ্য রাজনীতিবীদদের ছবি । সারাক্ষণ ভিবিন্ন অপকর্ম চলে এই জায়গাটিতে, হর হামেশাই এখানে বিভিন্ন চোরাই পন্য যেমন মোবাইল,ঘড়ি,ইলেকট্রনিক পণ্য,জুতা ও সেন্ডেল আরো অনেক কিছু বিক্রি হয় কিন্তু প্রশাসন কিছুই করতে পারছে না, সন্ধ্যায় বসে মাদক ও ভিবিন্ন অবৈধ কর্ম কান্ডের আসর। ফুটপাত দখল করে গ্রাস করার পর এখন রাস্তার অর্ধেক প্রায় দখল হয়ে গেছে । আরো জানা গেছে কিছু অসাধু পুলিশের চত্রছায়ায় ও মাসিক চাঁদার বিত্তিতে চালিয়ে যাচ্ছে ব্যবসা,এই সমস্ত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা এবং জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী সহ অন্যান্য নেতাদের ছবি ব্যবহার করে যারা অনৈতিক কর্মকাণ্ড ও দখলের রাজত্ব কায়েম করছে সেই সব অপরাধিকে অভিযানের মাধ্যমে গ্রেফতার সহ ফুতপাত থেকে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর সহ অন্যান্যদের ছবি অপসারণ করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*