চিটাগাং চেম্বারের সাথে কনফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান ইন্ডাষ্ট্রি’র প্রতিনিধিদলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত


আমাদের ডেস্ক::
কনফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান ইন্ডাষ্ট্রি’র ১৪ সদস্যবিশিষ্ট একটি বাণিজ্য প্রতিনিধিদল দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সভাপতি মাহবুবুল আলমের সাথে দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। ১৪ ডিসেম্বর দুপুরে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারস্থ বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন বন্ধন ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও চন্দ্র শেখর ঘোষ (Chandra Shekhar Ghosh) | এ সময় চেম্বার পরিচালকবৃন্দ সৈয়দ জামাল আহমেদ, এ. কে. এম. আক্তার হোসেন, মোঃ অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন), মোঃ জহুরুল আলম ও নাজমুল করিম চৌধুরী শারুন উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময়কালে চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন-ভারত আমাদের দ্বিতীয় বৃহত্তম বাণিজ্য অংশীদার। তবে প্রায় ১০ বিলিয়ন ডলারের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে বাংলাদেশ থেকে রপ্তানি মাত্র ১.৪ বিলিয়ন। এই বিপুল বাণিজ্য ঘাটতি নিরসনে চেম্বার সভাপতি শুল্ক ও অশুল্ক বাধা, শুল্কায়ন পদ্ধতি, সার্টিফিকেশন ইত্যাদি বিষয়ে জিটুজি ভিত্তিতে কাজ করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি চীন, জাপান ও ভারতের জন্য বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক নির্মানাধীন বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চলের উল্লেখ করে শিল্প কারখানা স্থাপনের মাধ্যমে ভারতের বিশাল বাজার ও পৃথিবীর অন্যান্য দেশে পণ্য রপ্তানির মাধ্যমে উভয় পক্ষ লাভবান হতে পারে বলে মন্তব্য করেন এবং এক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকারের সুযোগ-সুবিধাসমূহ কাজে লাগানোর অনুরোধ জানান। চেম্বার সভাপতি মনে করেন বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই সবচেয়ে উপযুক্ত সময় এবং এক্ষেত্রে হলদিয়া ও কলকাতা বন্দরের সাথে নৌপথে যোগাযোগ, রেলপথ ও সড়কপথ ব্যবহারের সুবিধা হেতু মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল ভারতীয় বিনিয়োগের জন্য অত্যন্ত আদর্শ স্থান। চিটাগাং চেম্বার এক্ষেত্রে সর্বপ্রকার সহায়তা করবে বলে তিনি অবহিত করেন।
প্রতিনিধিদল নেতা চন্দ্র শেখর ঘোষ বলেন-বাংলাদেশের সাথে ভারতের ব্যবসা-বাণিজ্য দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনেক ভারতীয় ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তা বাংলাদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে অত্যন্ত আগ্রহী। বাংলাদেশ সরকার প্রদত্ত বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল যৌথ বা একক বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন এবং এক্ষেত্রে বিদ্যমান সুযোগ-সুবিধা অবলোকন ও ভবিষ্যৎ করণীয় নির্ধারণের লক্ষ্যেই বাণিজ্য প্রতিনিধিদলের এই সফর বলে তিনি জানান। চিটাগাং চেম্বার কর্তৃক নির্মিত ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে পঞ্চম তলায় প্রদর্শন হলে রপ্তানি পণ্য পরিদর্শন করে এদেশের পণ্য সম্পর্কে বিস্তারিত অবহিত হয়ে চেম্বারের এই উদ্যোগ অত্যন্ত ইতিবাচক উল্লেখ করে ভবিষ্যতে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো সম্প্রসারণের আশাবাদ ব্যক্ত করেন চন্দ্র শেখর ঘোষ। আলোচনা শেষে ধন্যবাদজ্ঞাপনকালে চেম্বার পরিচালক নাজমুল করিম চৌধুরী শারুন বাংলাদেশে পর্যটন খাতের উন্নয়ন, ধর্মীয় পর্যটন বৃদ্ধি, ব্যবসায়িক বিরোধ নিষ্পত্তি এবং কলকাতা-কক্সবাজার রুটে সপ্তাহে অন্তত ১টি ফ্লাইট চালু করার লক্ষ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করার অনুরোধ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*