লোহাগাড়ায় অগ্নিকান্ডে পুড়ল ২বসতঘর, ক্ষতিগ্রস্থ ২পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন ইউএনও


রায়হান সিকদার, লোহাগাড়া::
লোহাগাড়ায় অগ্নিকান্ডে ২ পরিবারের বসতঘর পুড়ে ছাই হয়েছে । বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য মৃণাল কান্তি মিলন মেম্বার নিশ্চিত করেছেন। গতকাল দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় উপজেলার আমিরাবাদ সুখছড়ি কালীবাড়ীর পুর্ব পার্শ্বে রাজবাড়ীতে এ ঘটনাটি ঘটেছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো হলো ওই এলাকার মৃত চন্দন দাশের স্ত্রী নমিতা দাশ(৫২) ও মৃত নলিনী রঞ্জন দাশের পুত্র কাঞ্চন দাশ(৪৮)। স্থানীয়রা জানান, ক্ষতিগ্রস্ত ২পরিবারের লোকজন খুব বেশী অসহায়। সোমবার দিবাগত রাতে রান্না ঘরের চুলা থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত ঘটে।স্থানীয়রা লোকজন দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার আপ্রাণ চেষ্টা করেও শেষ রক্ষা করতে পারেনি। আগুনে ২ পরিবারের বসতঘর ভস্মীভূত হয়। অগ্নিকান্ডে আনুমানিক ৩লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবী করেছেন।
বর্তমানে তারা খোলা আকাশের নিচে দিনাতিপাত করছে। এদিকে আজ ১৪ জানুয়ারী সকাল ১১টায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে ছুটে আসেন আমিরাবাদ ইউপির ৯নং ওয়ার্ড সদস্য মৃণাল কান্তি মিলন মেম্বার। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে শীতবস্ত্র ও আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। স্থানীয় ইউপি সদস্য মৃণাল কান্তি মিলন মেম্বার বলেন, হঠাৎ অগ্নিকান্ডে ২ বসতঘরে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে প্রায় ৩ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।
অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ২ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ তৌছিফ আহমেদ।
১৪ জানুয়ারী দুপুর ১টায় ক্ষতিগ্রস্তদেরকে লোহাগাড়া উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২বান টিন, কম্বল ও নগদ অর্থ প্রদান করেন ইউএনও তৌছিফ আহমদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন আমিরাবাদ ইউপির চেয়ারম্যান(ভারপ্রাপ্ত) এসএম ইউনুছ, ইউপির ৯নং ওয়ার্ড সদস্য মৃণাল কান্তি মিলন মেম্বার, মহিলা সদস্য রেহেনা আকতার। ইউএনও মুহাম্মদ তৌছিফ আহমেদ জানান, তিনি অনলাইনে সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘর পরিদর্শন করেন। তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে টিন, কম্বল ও নগদ অর্থ প্রদান করেছেন বলেও তিনি জানান। আগামীতেও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে সর্বাত্মক সহযোগীতা প্রদানের আশ্বাস দেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*