সিএন্ডএফ নেতা বাচ্চুর বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক :: শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম কাস্টমসের মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি পণ্য খালাসের অভিযোগে সিএন্ডএফ এজেন্ট নেতা আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চুর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রাথমিকভাবে সরকারের শুল্ক ফাঁকি ও কাস্টমসের রাজস্ব কর্মকর্তাকে গালাগাল ও হুমকির বিষয়ে তদন্তে নেমেছে দুদক। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে দুদক জেলা সমন্বিত কার্যালয় চট্টগ্রাম-১ এর সহকারী পরিচালক জাফর আহম্মেদের নেতৃত্বে একটি এনফোর্সমেন্ট টিম চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজে অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করে। দুদক কর্মকর্তা বলেন, চট্টগ্রাম কাস্টমসের এক রাজস্ব কর্মকর্তাকে হুমকি দেওয়ার ঘটনায় কমিশনের নির্দেশ অনুসারে এনফোর্সমেন্ট টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। সেখানে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কিছু নথিপত্রও সংগ্রহও করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চুর বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে তথ্য যাচাই বাছাই চলছে। রির্পোটটি প্রধান কার্যালয় বরাবর পাঠিয়ে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের সুপারিশ করবে এনফোর্সমেন্ট টিম। কমিশনের নির্দেশক্রমে তার বিরুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু বলেন, ‘এটা অনিয়ম হয়নি। আমি শুল্কও ফাঁকি দিইনি। আমি আরও ২ লাখ ৮৯ হাজার চেয়ে আরও বেশি টাকা পাবো। এ বিষয়ে আমার কাছে তথ্য চেয়েছে দুদক। আমি তাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিয়েছি।’ উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১০ ডিসেম্বর আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান কুমিল্লার হাইটেক কোম্পানি লিমিটেড চীন থেকে ২০টন কপার টিউব আমদানির ঘোষণা দেন। সেখানে ২০টনের জায়গায় কপার টিউব আমদানি করা হয় সাড়ে ২৩টন। ২০টনের জন্য শুল্ক জমা দিলেও অতিরিক্ত সাড়ে ৩ টনের ৫ লাখ টাকা শুল্ক না দিয়েই জোর খাটিয়ে চালান নিয়ে যান আলতাফ। গত ১৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় এ পণ্য ছাড় করাতে গেলে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের রাজস্ব কর্মকর্তা দারাশিকো আপত্তি জানিয়ে এই সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য প্রমাণাদি দেখাতে চান। ক্ষিপ্ত হয়ে চিটাগং ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়াডিং (সিএন্ডএফ) এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগ নেতা আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চুর প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যাক্তি ওই কর্মকর্তাকে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল ও দেখে নেওয়ার হুমকি দেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*