বাংলাদেশে ফেসবুকের থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট চেকিং প্রোগ্রাম চালু

ঢাকা অফিস :: ফেসবুকে ভুল তথ্য এবং গুজব প্রতিরোধে বাংলাদেশে থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট চেকিং প্রযুক্তি চালু করেছে ফেসবুকে। তথ্য যাচাইয়ের পাশাপাশি অনলাইনে প্রাপ্ত খবরের গুণগত মান উন্নয়নেও কাজ করবে এই প্রযুক্তি। রোববার (১৯ এপ্রিল) বাংলাদেশে ফেসবুকের পক্ষে একটি সংস্থার পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। পয়েন্টার ইনস্টিটিউটের নিরপেক্ষ অঙ্গসংগঠন ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাক্ট চেকিং নেটওয়ার্ক (আইএফসিএন) অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান বিওওএমের (বুম) সঙ্গে অংশীদার হয়ে কাজ করবে ফেসবুক। বুম, বাংলাদেশের ফেসবুক কমিউনিটিতে বিদ্যমান ছবি ও ভিডিওসহ ফেসবুক স্টোরিগুলোর যথার্থতা পর্যালোচনা করে রেটিং দেবে। যখন থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট-চেকাররা কোনো পোস্টকে অসত্য হিসেবে রেটিং দেবে তখন এটি নিউজ ফিডে কম বা একেবারে নিচের দিকে প্রদর্শিত হবে যা পোস্টটির ছড়িয়ে পড়া উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করবে। ফেসবুক ভারত এবং মিয়ানমারের মতো অন্যান্য দেশেও বুমের সঙ্গে কাজ করছে। ফেসবুকের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের নিউজ পার্টনারশিপ ডিরেক্টর অঞ্জলি কাপুর বলেন, আমরা জানি যে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা সঠিক তথ্যই পেতে চায়। সেজন্য আমরা বাংলাদেশে বুমের সঙ্গে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে আমাদের থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট চেকিং প্রোগ্রাম অব্যাহত রাখতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত। আমরা বিশ্বাস করি, এই ফ্যাক্ট চেকিং প্রোগ্রামের সাহায্যে আমরা আরও সচেতন জনগোষ্ঠী তৈরি করতে এবং স্থানীয়ভাবে এই প্রোগ্রামটি আরও সম্প্রসারণ করতে পারবো। ফেসবুকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, নিউজ ফিডে যে পোস্টগুলো দেখা যায় সেগুলোর মান এবং সত্যতা উন্নত করতে এই প্রোগ্রামটি ফেসবুকের থ্রি-পার্ট ফ্রেমওয়ার্কের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট-চেকাররা যখন কোনো পোস্ট নিয়ে লেখেন, ফেসবুকের নিউজ ফিডে সেই পোস্টের ঠিক নিচে রিলেটেড আর্টিকেলস অংশে সেটি সঙ্গে সঙ্গে দেখায়। ফেসবুকের বিদ্যমান পেজগুলোর এডমিন বা কোনো সদস্যও যদি কোনো অসত্য তথ্য পোস্ট করার চেষ্টা করে তাদের কাছেও নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে। ফলে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা কী ধরনের পোস্ট পড়বে, কোনো তথ্যটি বিশ্বাস করবে আর কী শেয়ার করবে বা করবে না সেগুলো নিজেরাই জেনে বুঝে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। বুমের প্রতিষ্ঠাতা-সম্পাদক গোবিন্দ এথিরাজ বলেন, বুম একটি নিবেদিত দল নিয়ে আমাদের ফ্যাক্ট চেকিং অপারেশন বাংলাদেশে প্রসারিত করতে পেরে আনন্দিত। আমরা স্বাস্থ্য এবং চিকিৎসা থেকে শুরু করে বর্তমান যেকোনো বিষয় নিয়ে অনলাইনে প্রচলিত ভুল তথ্যগুলোকে চিহ্নিত করে প্রতিরোধ করার চেষ্টা করবো। ফ্যাক্ট চেকিং হলো আমাদের বিশেষত্ব এবং আমরা আশাবাদী যে এই প্রচেষ্টার মাধ্যমে বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা প্রয়োজনীয় ও সঠিক তথ্য পেয়ে যেকোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবেন এবং অনলাইনে সত্য খবর এবং তথ্য শনাক্ত করতে সক্ষম হবেন। থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট-চেকিংয়ের পাশাপাশি ফেসবুকের ব্যবহারকারীদের ডিজিটাল নিউজ লিটারেসি নিয়ে দক্ষতা অর্জন করে কী পড়তে হবে, কোনো তথ্যটি বিশ্বাস করতে হবে এবং কী শেয়ার করা যাবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে সক্ষম করে।
বুম বাংলাদেশের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট: hhttps://www.boombd.com/
বুম বাংলাদেশের ফেসবুক পেজ: https://www.facebook.com/Boombangladeshnews/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*